তাঁরা ফিরে আসেন আমরা ফিরে যাই

জান্নাতুল মাওয়া শাখি    ০৫:৪৬ পিএম, ২০২০-০৪-১৬    133


তাঁরা ফিরে আসেন আমরা ফিরে যাই

প্রতিটি মানুষের মধ্যে দুটি সত্বার বসবাস। মনুষত্ব এবং পশুত্ব। এই দুটি সত্বাকে আমি দু’ভাবে মনে করি। একটি দূর্বল অন্যটি সবল অর্থাৎ সবল মনুষত্ব, দূর্বল মনুষত্ব অন্যদিকে সবল পশুত্ব এবং দূর্বল পশুত্ব। এই সম্পর্কিত বিস্তারিত অন্যকোনদিন অন্যকোন লেখায় প্রকাশ করবো।

বিশ্বব্যাপী এখন সবচেয়ে আতঙ্কগ্রস্থ শব্দটির নাম করোনা ভাইরাস। হোয়াইট হাউস থেকে দক্ষিণ আফ্রিকার বুভুক্ষু মানুষগুলো এই ভাইরাসের ভয়ে রয়েছে আতঙ্কে। বিশ্বের ক্ষমতাধর রাষ্ট্রগুলো যেন ‘ইয়া নফসি, ইয়া নফসি’ করছে। এই সময়টায় বিশ্বব্যাপী দেবদূত হিসেবে কাজ করছেন ডাক্তার, নার্স এবং এই সংশ্লিষ্ট ব্যক্তিরা। নিজের জীবনকে করোনার

কাছে সঁপে দিয়ে ‘মানুষ’ বাঁচানোর এক পবিত্র সংগ্রামে তাঁরা কাজ করে চলেছেন মাসের পর মাস। এই মহান সংগ্রামে নিয়োজিত থেকে ইতোমধ্যে প্রাণও হারিয়েছেন অনেকে। সেসব বিশ্ববীরদের প্রতি বিনম্র শ্রদ্ধা।

বিশ্বব্যাপী এই দূরেযাগ মুহুর্তে ‘মানব’ আর পশু’র স্পষ্ট ব্যবধান গড়ে দিচ্ছে। এই যেমন কোভিড-১৯ করোনা রোগীদের চিকিৎসা দিতে নিজের চিকিৎসক পেশায় ফিরলেন আইরিশ প্রধানমন্ত্রী লিও ভারাদকার। গোটা বিশ্বে করোনা মহামারীর ভয়াবহতা দেখে আবারও পুরনো পেশায় ফিরছেন তিনি। চিকিৎসক হিসেবে নিজের নাম আবার নিবন্ধিত করেছেন। শুধু তাই নয় ভারতীয় বংশোদ্ভূত রাজনীতিক ভারাদকারের বাবা-মা ও দুই বোনও রয়েছেন একই পেশায়।
এই মানবতার সংগ্রামে তিনি একা নন আরো রয়েছেন। তেমনই একজনের কথা বলছি এবার। ২০১৯ সালের মিস ইংল্যান্ড প্রতিযোগিতায় অংশ নেওয়ার জন্য চিকিৎসা পেশা ছেড়েছিলেন। সেবছর প্রতিযোগিতায় সেরা নির্বাচিত হওয়ার পর মডেলিংয়ে যোগ দেন তিনি। তবে এবার করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে উদ্ভূত বৈশ্বিক এই স্বাস্থ্য সংকটে ফের ডাক্তারি পেশায় ফিরলেন মিস ইংল্যান্ড ভাষা মুখার্জি।
সংবাদমাধ্যম সুত্রে জানা যায়, মার্চের শুরুতে মিস ইংল্যান্ড তার জন্মস্থান ভারতে দাতব্য প্রতিষ্ঠান কভেন্ট্রি মার্সিয়া লায়ন্স ক্লাবের আমন্ত্রণে চার সপ্তাহের জন্য গিয়েছিলেন। সেখানে স্কুলের শিক্ষার্থীদের সচেতন করে তুলতে ও প্রতিবন্ধীদের সাহায্যে কাজ করছিলেন তিনি। তবে যুক্তরাজ্যে এরিমধ্যে করোনাভাইরাস পরিস্থিতির অবনতি হওয়ায় সাবেক কর্মস্থল পিলগ্রিম হাসপাতালের সহকর্মীরা তার সঙ্গে যোগাযোগ করেন। তারা ভাষাকে বলেন, যুক্তরাজ্যে কী কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যেতে হচ্ছে তাদের। ভাষা মুখার্জি পরে পিলগ্রিম হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে যোগাযোগ করে করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের চিকিৎসার কাজে যোগ দেওয়ার ইচ্ছার কথা জানান এবং চিকিৎসা পেশায় যোগ দেন।

মনুষত্বের গল্পতো হলো এবার শুনাই পশুদের বা পশুত্বের গল্প। বিভিন্ন হাসপাতালে ঘুরে কোথাও চিকিৎসা না পেয়ে গত সোমবার সকালে মারা গেছেন দীর্ঘদিন ফুসফুসের সমস্যায় ভুগতে থাকা ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থী সুমন চাকমা। বিশ্ববিদ্যালয়ের আইইআর ইনস্টিটিউটের মাস্টার্সের শিক্ষার্থী ছিলেন সুমন। মৃত্যু কয়েকদিন আগে তিনি ব্যক্তিগত ফেসবুক একাউন্টে লিখেন, ‘আমার করোনা হয়নি অথচ পরিস্থিতি দেখে মনে হচ্ছে করোনার জন্যই আমাকে মরতে হবে’।

১. মনে পড়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে দ্বিতীয় ব্যক্তির মুত্যুর পর তাঁর ছেলে ইকবাল আবদুল্লাহ আবেগঘন সেই স্টেটাস। স্ট্যাটাসে বিভিন্ন হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের চরম অবহেলা আর অযত্নের কারণে তাঁর বাবার মৃত্যুর কাহিনী উল্লেখ করেন। সেখানে তিনি এক ডাক্তারের কথা বলতে গিয়ে লিখেন, ‘আমাদের পরিচিত একজন স্পেশালিস্ট ডক্টরকে দেখাই। উনি আমাকে বলেন, রোগীর নিউমোনিয়া হয়েছে। তাঁকে নিউমোনিয়ার ট্রিটমেন্ট দিতে হবে। তবে বাংলাদেশের কোনো হসপিটাল এই রোগীর ভর্তি নেবে না। আপনারা বাসায় ট্রিটমেন্ট করেন।’
২. একই দিন ডা. শান্তা জ্বর ও পাতলা পায়খানা আক্রান্ত ভগ্নিপতিকে নিয়ে যান আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্রে (আইসিডিডিআর,বি)। কিন্তু কর্তৃপক্ষ ভর্তি না নেয়ায় পরে সোহরাওয়ার্দী হাসপাতালে ভর্তি করাতে সক্ষম হন। ((যুগান্তর ২ এপ্রিল))
৩. রাজধানীর আরেক চিকিৎসক তানিয়ার খালু একজন কিডনি ডায়ালাইসিসের রোগী। বুধবার সরকারি-বেসরকারি কোনো হাসপাতালে ডায়ালাইসিসের জন্য ভর্তি করাতে পারেননি। পরে এ্যাপোলো হাসপাতালে নিয়ে গেলে আইসিইউ নেই বলে তারাও ভর্তি নেয়নি। (যুগান্তর ২ এপ্রিল)
৪. . ডা. তানিয়া শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় তার মাকে নিয়ে রাজধানীর ৫টি সরকারি হাসপাতালের দ্বারস্থ হন। কিন্তু নিজে চিকিৎসক হয়েও কোথাও তার মায়ের চিকিৎসার ব্যবস্থা করাতে পারেননি। বাসায় তার বাবা স্ট্রোকের কারণে পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়ে পড়ে আছেন। ((যুগান্তর ২ এপ্রিল))
৫. মেয়র খায়রুন্নেছা তানি নামের এক মহিলার মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে যিনি ছিলেন সন্তান সম্ভবা। শ্বাস-কষ্টের ট্রিটমেন্ট, চমেক আইসিইউর জন্য বেশ কয়েকটি হাসপাতাল ঘুরে পরবর্তীতে ন্যাশনাল হাসপাতালে নেওয়ার পর জানা যায় এই মানবিক এই বিশ্বের দানবীয় দেশে তিনি আর নেই! গর্বের সন্তান সহ পরপারে পাড়ি জামিয়েছেন।(সি-ভিশন, ৮ এপ্রিল)
৬. করোনা আকঙ্কে সবাই যখন ঘরে ঠিক সেই মুহুর্তে হাতে গোনা কয়েকটি সংস্থা নিজের জীবনকে তুচ্চ করে মানবসেবা ও দেশসেবা করে যাচ্ছেন। পুলিশ তার মধ্যে অন্যতম।
গত ৯ এপ্রিল বৃহস্পতিবার যশোর জেনারেল হাসপাতালের করোনারি কেয়ার ইউনিটে চিকিৎসক ও নার্সের অবহেলায় রেলকর্মী আহসানুল ইসলামের (৪৮) মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। মৃতব্যক্তি নড়াইলের নড়াগাতি থানার ওসি রোকসানা খাতুন। তিনি হাসপাতালে কান্না করতে করতে বলেন,‘এই শুনছ; তোমার মেয়ে নিয়ে এখন কি করব। তোমার মেয়ে একা একা খায় না তুমি ছাড়া। অথচ এই ডাক্তাররা কোনো ট্রিটমেন্ট দিল না। পুলিশ এত সেবা দিচ্ছে অথচ পুলিশ পরিবার আজ সেবা পাচ্ছে না’
তিনি বিলাপ করতে করতে আরো বলেন, কাঁদতে কাঁদতে তিনি বলেন, আমি এত লোকের সেবা করে বেড়াচ্ছি। অথচ শুধু ডাক্তারের অবহেলায় আমার স্বামী মারা গেল। আমার সন্তানরা এতিম হলো। ( কালের কণ্ঠ, ৯ এপ্রিল)

দেশের চিকিৎসা ব্যবস্থার এমন করুণ অবস্থায় খোদ স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেন, দেশে অনেক বেসরকারি হাসপাতালের ভালো চিকিৎসা দেয়ার সক্ষমতা থাকলেও এখন সেই মাত্রায় সেবা পাওয়া যাচ্ছে না। বেসরকারি ডাক্তাররা অনেকেই ভালো সেবা দিয়ে থাকেন। কিন্তু তাদের চেম্বারগুলো এখন বন্ধ রয়েছে বলে আমাদের কাছে খবর আসছে। (যুগান্তর ২ এপ্রিল)
যেখানে বিশ্বব্যাপী ডাক্তারগণ নিজ তাগিদে চিকিৎসা সেবা দিয়ে যাচ্ছেন সেখানে আমাদের রাষ্ট্রের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ইতোমধ্যে কড়া বর্তা দিয়ে চিকিৎসকদের মানবিক হওয়ার আহবান জানান।

স্বাধীনতার পর থেকে আমাদের দেশে মৌলিক অধিকারগুলো নিয়ে একটা ব্যবসায়িক সিন্ডিকেট গড়ে উঠে। এই শক্তিশালী সিন্ডিকেটের বিরুদ্ধে আমরা সবাই অসহায়। ডাক্তারদের নিয়ে ব্যবসা যারা করেন তাঁদের স্রেফ ব্যবসায়ী বলেই আখ্যা দেওয়া উচিৎ। বছরের পর বছর তাঁর এদেশের মানুষের রক্ত চুষেছেন নামে-বেনামে, হিসেবে-বেহিসেবে। এইসব ব্যবসায়ী তাহলে কেন এই মহাদে র্যো গে তাদের প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখবেন? তাদের প্রতিষ্ঠানে কর্মরত ডাক্তারদের সুরক্ষা নিশ্চিত করতে কেন তারা টাকার পাহাড় থেকে সামান্যটুকু ব্যয় করবেন না? এসব নানা প্রশ্নের উত্তর জানতে হবে রাষ্ট্রকে। এবং এটাই মোক্ষম সময়।

তবে আশার আলো এই, বেসরকারী কসাইখানায় যাই হোক না কেন সরকারী হাসপাতালগুলোর অবস্থা প্রশংসাযোগ্য। সরকারী চিকিৎসকরা নিজেদের সর্বোচ্চটুকু দিয়ে চিকিৎসাসেবা দেওয়ার চেষ্টা অব্যাহত রেখেছেন। কিছু কিচু বেসরকারী হাসপাতাল কর্তৃপক্ষও মানবিকতার দ্বার দিয়েছেন খুলে। দেশের সরকারী চিকিৎসকরা কর্মস্থলে থেকে ঝুঁকির মধ্যেও পেশাদারিত্ব বজায় রেখে চলেছেন। অনেকে ব্যক্তিগত উদ্যোগেও সেবা দিয়ে যাচ্ছেন।

সমাজ বিজ্ঞানে একটি কথা আছে, The Sum and organisation of those traits Which determine the role of the individual in the group অর্থাৎ যে সমস্ত বিশেষ লক্ষণের সমষ্টি এবং সংগঠন। যা দলের মাঝে ব্যক্তির ব্যবহার নির্ধারণ করে। যখন চারদিকে অন্ধকার তখন আলো নিয়ে আইরিশের প্রধানমন্ত্রী কিংবা মিস ইংল্যান্ড হয়ে অসহায় মানুষের পাশে দাঁড়াবে বা দাঁড়াচ্ছে কেউ কেউ। আর তারা ‘the difference are in kind rather than in degree, in each case’ অর্থাৎ, তাদের তফাৎটা পরিমাণে নয়, আকৃতি বা প্রকৃতিতে।

লেখক : জান্নাতুল মাওয়া শাখির ফেসবুক পোষ্ট থেকে নেওয়া।


রিটেলেড নিউজ

বিশ্ব বই দিবস আজ : করোনায় বই হোক সঙ্গী

বিশ্ব বই দিবস আজ : করোনায় বই হোক সঙ্গী

জান্নাতুল মাওয়া শাখি

কবি সাহিত্যিকদের ভাষায় ‘রুটি মদ ফুরিয়ে যাবে, প্রিয়ার কালো চোখ ঘোলাটে হয়ে আসবে, কিন্তু বইখানা অ... বিস্তারিত

শুধু ত্রাণে পরিত্রাণ নয়, চিকিৎসা নিশ্চিত, মন্ত্রীদের আস্ফালন ও চুরির রাজত্ব বন্ধ করুণ

শুধু ত্রাণে পরিত্রাণ নয়, চিকিৎসা নিশ্চিত, মন্ত্রীদের আস্ফালন ও চুরির রাজত্ব বন্ধ করুণ

বাবলু চৌধুরী

প্রিয় স্বদেশকে নিয়ে চিন্তার অন্তি নেই। গণবসতি আমাদের এ দেশটিতে করোনা আধিক্যতা বাড়লে রক্ষা পাওয়া ... বিস্তারিত

গৃহবধুর গৃহে বসন্ত সুখ, বাহিরে ঘুরছে মৃত্যুদূত!

গৃহবধুর গৃহে বসন্ত সুখ, বাহিরে ঘুরছে মৃত্যুদূত!

বাবলু চৌধুরী

পেঁয়াজটা একটু কেটে দাও, আমি রান্না করব। কাজ তো নেই, বউয়ের পেঁয়াজ কাটার আবদারটা না রাখার বায়নাও ধরতে ... বিস্তারিত

লকডাউনের দিনগুলো কাটুক ইবাদতে

লকডাউনের দিনগুলো কাটুক ইবাদতে

সুফিয়ান নোমান

লকডাউনে থাকা অবস্থায় আমাদের প্রতিটি মুহুর্তকে আমরা কাজে লাগাতে পারি। এই মুহুর্তে আমরা ইবাদত বন্দ... বিস্তারিত

মির্জা ভাই, এত তাড়াতাড়ি বিদায়!

মির্জা ভাই, এত তাড়াতাড়ি বিদায়!

আদনান সৈয়দ

তাকে আমি ডাকি মির্জা ভাই বলে। আমার সিনিয়র অথাব জুনিয়র সেই খবর আমি জানি না। সম্পর্কটা শুরু হয়েছিল ... বিস্তারিত

করোনার বিশেষ ‌‘অজ্ঞ’দের বলছি!

করোনার বিশেষ ‌‘অজ্ঞ’দের বলছি!

বাবলু চৌধুরী

ফেসবুকে ইতালির প্রধানমন্ত্রী জিউসেপ কোঁতের কান্নার ছবিটি ভাইরাল হতে দেখলাম। তিনি কান্না করে বলল... বিস্তারিত

সর্বশেষ

‘পরিস্থিতি অনুকূল হলেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে’

‘পরিস্থিতি অনুকূল হলেই শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলা হবে’

bcv24 ডেস্ক

জীবিকা নয়, জীবনের জন্যই শিক্ষা প্রয়োজন, এ বাস্তবতা শিক্ষার্থীদের উপলব্ধি করার আহ্বান জানিয়েছেন আ... বিস্তারিত

‘বেগম জিয়ার কারামুক্তি প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতা’

‘বেগম জিয়ার কারামুক্তি প্রধানমন্ত্রীর মহানুভবতা’

bcv24 ডেস্ক

তথ্যমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ বলেছেন, বেগম জিয়াকে ২য় বার কারামু... বিস্তারিত

সংসদ অধিবেশনে যোগ দিতে করোনা পরীক্ষা করতে হবে

সংসদ অধিবেশনে যোগ দিতে করোনা পরীক্ষা করতে হবে

bcv24 ডেস্ক

একাদশ সংসদের নবম অধিবেশন বসছে আগামীকাল রোববার। মহামারীর মধ্যে এ সংসদ অধিবেশনে যোগ দিতে করোনাভা... বিস্তারিত